রেজি: কেএন ৭৫52 তম বর্ষ বাংলা October 2, 2022 ইং

করোনা পরিস্থিতি


Warning: array_filter() expects parameter 1 to be array, string given in /www/wwwroot/dainikjanmobhumi.com/wp-content/plugins/corona/corona.php on line 322
বাংলাদেশবিশ্বকরোনা মানচিত্রদেশে-দেশে

বাংলাদেশ

Confirmed
0
Deaths
0
Recovered
0
Active
0
Last updated: October 2, 2022 - 4:19 pm (+06:00)

বিশ্ব

Confirmed
0
Deaths
0
Recovered
0
Active
0
Last updated: October 2, 2022 - 4:19 pm (+06:00)
Last updated: October 2, 2022 - 4:19 pm (+06:00)
1-9 10-99 100-999 1,000-9,999 10,000+

Global

  • Confirmed
    Deaths
    Recovered

    • Warning: Invalid argument supplied for foreach() in /www/wwwroot/dainikjanmobhumi.com/wp-content/plugins/corona/templates/corona-list.php on line 26
    Total
    0
    0
    0
    Last updated: October 2, 2022 - 4:19 pm (+06:00)

    খুলনায় প্রতিযোগিতাপূর্ণ ফুড কোর্ট ব্যবসা

    সম্পাদক

    জন্মভূমি রিপোর্ট
    সময়ের সাথে সাথে খুলনায় বাড়ছে রেস্টুরেন্ট ও ফুড কোর্ট ব্যবসা। প্রতিনিয়ত গড়ে উঠছে নতুন নতুন ফুড কোর্ট। ফলে গত কয়েক বছরে ফুড কোর্ট ব্যবসায় এক ধরনের ব্যবসায়ীক যুদ্ধ বা প্রতিযোগীতা চলছে। এই প্রতিযোগীতায় টিকতে না পেরে বন্ধ হয়ে গেছে অনেক ফুট কোর্ট।
    খুলনায় প্রথম ফুড কোর্ট ব্যবসা শুরু হয় ২০১৮ সালে লা ফিয়াস্তার মাধ্যমে। পরবর্তীতে লা ফিয়াস্তার পাশাপাশি চালু হয়েছে চিল আউট, রাজমহল, শ্যনন রিডার ভিউ, ক্লাউড নাইন, ব্লু অর্কিড, ব্লেসড ট্রি, ফুড ষ্টুডিও এবং নির্মাণাধীন রয়েছে স্পাইসি ফুড আইসল্যান্ড, কোকাকোলা ফুট কোর্ট। গত কয়েক বছরে খুলনা শহরে ফুড কোর্ট এবং রেস্টুরেন্ট ব্যবসায় ছোট খাটো বিপ্লব ঘটেছে। তবে এসব ফুড কোর্ট বা রেস্টুরেন্টগুলোতে খাবারের মান আর দাম নিয়ে প্রশ্ন ছিল সব সময়। এ প্রতিযোগীতায় অন্যদের পেছনে ফেলতে পারেনি বলেই সম্প্রতি বন্ধ হয়ে গেছে খুলনায় সর্বপ্রথম চালু হওয়া ফুড কোর্ট লা ফিয়াস্তা। লা ফিয়াস্তার খুব কাছেই চালু হয়েছে আরেকটি ফুড কোর্ট রাজমহল। সেখানে খেতে আসা বিশ^বিদ্যালয়ের জান্নাত নাদিয়া বলেন, প্রথম দিকে লা ফিয়েস্তার ফুড কোর্টে গেলে বসার জায়গা পাওয়া যেতো না। অনেকক্ষণ দাড়িঁয়ে থাকতে হতো। তবে নতুন নতুন ফুড কোর্ট চালু হওয়ায় এবং কম দামে ভালো ভালো খাবার সরবরাহ করায় ধীরে ধীরে লা-ফিয়াস্তার কাষ্টমার কমতে থাকে। ব্লু অর্কিড ফুড কোর্টে সপরিবারে খেতে আসা মারুফ বলেন, ”খুলনায় নতুন নতুন অকেগুলো ফুড কোর্ট চালু হয়েছে, ব্যাপারটি ভালো। তবে ঘুরে ফিরে সব জায়গায় একই রকম প্লেটার, এতে অনেকেই বিরক্ত। ভিন্ন ভিন্ন স্বাদের নতুন আইটেম এবং ভালো পরিবেশ সব সময় ক্রেতাদের আকৃষ্ট করে”। লা ফিয়াস্তার ফুড কোর্টের অধিকাংশ ষ্টল নতুন করে ব্যবসায় ফিরে আসতে পারেনি। তবে খাবারের ভিন্নতা এবং ভালো মান দিয়ে যে ব্যবসায় টিকে থাকা যায় তার উদাহরন হতে পারে লাজিজ। লাজিজ এর স্বত্তাধিকারী বলেন, আমরা সব সময় কাষ্টমারদের কম দামে ভালো খাবার সরবরাহ করার চেষ্টা করেছি, এখনো করি। আমরা এই ফুড কোর্টে ( ক্লাউড নাইন) চলে এসেছি। এখানেও আমরা কাষ্টমারদের থেকে খাবার নিয়ে ইতিবাচক রিভিউ পাচ্ছি এবং তাদের পছন্দ অনুযায়ী ফ্রেশ খাবার সরবরাহ চেষ্টা অব্যাহত রেখেছি।
    খুলনা বিশ^বিদ্যালয়ের ব্যবসায় প্রশাসন ডিসিপ্লিনের অধ্যাপক শরীফ মোহাম্মদ খানের কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, ” নতুন ব্যবসায় টিকে থাকতে হলে প্রথমত আপনার উদ্ভাবনী চিন্তাশক্তি থাকতে হবে এবং মার্কেটে বিদ্যমান অন্য ব্যবসায়ীদের সাথে গতানুকাতিক ভাবে না চলে নিত্যনতুন পরিবর্তন এনে ক্রেতাদের আকর্ষণ ধরে রাখতে হবে।

    Leave a Reply