রেজি: কেএন ৭৫52 তম বর্ষ বাংলা December 4, 2022 ইং

করোনা পরিস্থিতি


Warning: array_filter() expects parameter 1 to be array, string given in /www/wwwroot/dainikjanmobhumi.com/wp-content/plugins/corona/corona.php on line 322
বাংলাদেশবিশ্বকরোনা মানচিত্রদেশে-দেশে

বাংলাদেশ

Confirmed
0
Deaths
0
Recovered
0
Active
0
Last updated: December 4, 2022 - 9:28 pm (+06:00)

বিশ্ব

Confirmed
0
Deaths
0
Recovered
0
Active
0
Last updated: December 4, 2022 - 9:28 pm (+06:00)
Last updated: December 4, 2022 - 9:28 pm (+06:00)
1-9 10-99 100-999 1,000-9,999 10,000+

Global

  • Confirmed
    Deaths
    Recovered

    • Warning: Invalid argument supplied for foreach() in /www/wwwroot/dainikjanmobhumi.com/wp-content/plugins/corona/templates/corona-list.php on line 26
    Total
    0
    0
    0
    Last updated: December 4, 2022 - 9:28 pm (+06:00)

    তালায় সুইসাইড নোট লিখে গৃহবধূর আত্মহত্যা : শ্বশুর-শাশুড়ি আটক

    তালা প্রতিনিধি সম্পাদক

    সাতক্ষীরার তালায় শ্বশুর ও শাশুড়ির নির্যাতনে মৌসুমী সাহা (৩২) নামের এক গৃহবধূ আত্মহত্যা করেছে বলে জানা গেছে। তিনি জাতপুর বিএম কলেজের শিক্ষক উৎপল সাহার স্ত্রী। তাদের বাড়ি তালার বলরামপুর গ্রামে হলেও বর্তমানে তারা পাটকেলঘাটায় বসবাস করেন। গত মঙ্গলবার বিকালে উপজেলার পাটকেলঘাটার পল্লী বিদ্যুৎ রোডের সাহা বাড়িতে উক্ত ঘটনা ঘটে। এদিকে এক কন্যা সন্তানের জননী মৌসুমি সাহা মৃত্যুর আগে শ^শুর-শাশুড়িকে দায়ী করে একটি সুইসাইড নোট লিখে রেখে যান। উক্ত ঘটনায় গৃহবধূর শ্বশুর দীনবন্ধু সাহা ও শাশুড়ি স্বপ্না রানী সাহাকে আটক করেছে পুলিশ।  

    সুইসাইড নোটে লেখা ছিল, “আমার মৃত্যুর জন্য একমাত্র দায়ী আমার শ্বশুর-শাশুড়ি। দুই জানোয়ার আমাকে বাঁচতে দিল না। আমার মৃত্যুর পরে যেনো ওদের বিচার হয়। আমার মত যেন আর কোন মেয়েকে মরতে না হয়। আমার মেয়েটা যেনো আমার মায়ের কাছে মানুষ হয়। আমার স্বামীকে ছেড়ে যেতে খুব কষ্ট হচ্ছে। কিন্তু আমি বেঁচে থাকলে আমার জানোয়ার শ্বশুর শাশুড়ি আমাদের শান্তিতে থাকতে দেবে না। তাই আমাকে নিরুপায় হয়ে এই পথ বেচে নিতে হলো। আমার মৃত্যুর জন্য আমার শ্বশুর আর শাশুড়ি দায়ী।” মৌসুমী সাহা।

    স্থানীয় বাসিন্দারা জানান, উৎপল সাহা স্ত্রীকে নিয়ে পাটকেলঘাটায় শান্তিপূর্ণভাবে বসবাস করে আসছিল।  বাড়ি ভাগাভাগিকে কেন্দ্র করে উৎপল সাহার পিতা-মাতা ও ছোট ভাই রাহুল সাহা প্রায়ই মৌসুমি সাহাকে শারীরিক ও মানসিকভাবে নির্যাতন করত। এ নিয়ে একাধিকবার স্থানীয়ভাবে সালিশী বৈঠকও হয়।  মঙ্গলবার দুপুরে শ্বশুর ও শাশুড়ি মৌসুমী সাহাকে মানসিকভাবে নির্যাতন করতে থাকে। বাধ্য হয়ে নিজ ঘরে ফ্যানের সাথে তিনি গলায় ওড়না পেঁচিয়ে আত্মহত্যা করে।

    ঐ গৃহবধূর স্বামী কলেজ শিক্ষক উৎপল সাহা জানান,  ২০০২ সাল থেকে তিনি পাটকেলঘাটা পল্লী বিদ্যুৎ রোডস্থ সাহা বাড়ীতে বসবাস করে আসছেন। ১৩ বছর আগে মৌসুমির সাথে তার বিবাহ হয়। আমার বাবা-মা ও ছোটভাই আমাকে বাড়ি থেকে বের করার জন্য নানা চেষ্টা করে আসছিল। এ নিয়ে প্রায়ই আমার স্ত্রীর সাথে অশান্তি হতো। মঙ্গলবার দুপুরে আমি বাইরে গেলে বাবা-মা আমার স্ত্রীকে মানসিকভাবে নির্যাতন করে। সর্বশেষ মুঠোফোনে তার স্ত্রী এসব তথ্য জানায়। আমি পরে বাসায় ফিরে দেখি ঘরে কোন সাড়া নেই, দরজা বন্ধ আছে। পরে দরজা ভেঙে স্ত্রীর ঝুলন্ত দেহ দেখতে পেয়ে পুলিশকে খবর দেই। পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে লাশটি উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায়। এ সময় আমার বাবা ও মাকে পুলিশ আটক করে নিয়ে যায়।

    এ বিষয়ে পাটকেলঘাটা থানার ওসি (তদন্ত) জেল্লাল হোসেন জানান, উক্ত ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য দু’জনকে আটক করা হয়েছে। ময়না তদন্ত শেষে  নিহতের লাশ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়।

    Leave a Reply