রেজি: কেএন ৭৫52 তম বর্ষ বাংলা August 19, 2022 ইং

করোনা পরিস্থিতি


Warning: array_filter() expects parameter 1 to be array, string given in /www/wwwroot/dainikjanmobhumi.com/wp-content/plugins/corona/corona.php on line 322
বাংলাদেশবিশ্বকরোনা মানচিত্রদেশে-দেশে

বাংলাদেশ

Confirmed
0
Deaths
0
Recovered
0
Active
0
Last updated: August 19, 2022 - 5:35 am (+06:00)

বিশ্ব

Confirmed
0
Deaths
0
Recovered
0
Active
0
Last updated: August 19, 2022 - 5:35 am (+06:00)
Last updated: August 19, 2022 - 5:35 am (+06:00)
1-9 10-99 100-999 1,000-9,999 10,000+

Global

  • Confirmed
    Deaths
    Recovered

    • Warning: Invalid argument supplied for foreach() in /www/wwwroot/dainikjanmobhumi.com/wp-content/plugins/corona/templates/corona-list.php on line 26
    Total
    0
    0
    0
    Last updated: August 19, 2022 - 5:35 am (+06:00)

    সাতক্ষীরায় মিথ্যা হত্যা মামলায় ফাঁসিয়ে হয়রানির অভিযোগ

    সম্পাদক

    সাতক্ষীরা প্রতিনিধি
    সাতক্ষীরায় জমি-জমা সংক্রান্ত বিরোধের জেরে মিথ্যা হত্যা মামলায় বেমাতা ভাইসহ তার দুইপুত্রকে ফাঁসিয়ে কারাগারে পাঠিয়ে হয়রানি ও নারীকেহ ত্যা চেষ্টার মামলা আসামিদের গ্রেফতারের দাবিতে সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে। শনিবার দুপুরে সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবের আব্দুল মোতালেব মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত সংবাদ সম্মেলনে এ অভিযোগ করেন সদরের কৈখালী গ্রামের আলী হোসেন মেম্বরের স্ত্রী নাছিমা খাতুন।
    লিখিত অভিযোগে তিনি বলেন, আমার স্বামী সদরের লাবসা ইউনিয়নের ৭নং ওয়ার্ডের নির্বাচিত ইউপি সদস্য। গত ১১ জুন সাতক্ষীরা সদর থানার লাবসা ইউনিয়নের কৈখালি গ্রামের মৃত আনছার আলী সরদারের পুত্র আমজেদ হোসেন বাদি হয়ে স্বামী আলী হোসেন, তিন পুত্র জুয়েল হোসেন, জুলফিকার ও রুবেল হোসেনের নামে মিথ্যা হত্যা মামলা দায়ের করেন। যার নং : ২৮, জিআর নং : ৪৫৭/২০২২।
    পুলিশ মেজো পুত্র মামলার ১নং আসামি জুয়েল হোসেনকে খুলনা থেকে গ্রেফতার করে। স্বামী, দুই পুত্র বিজ্ঞ উচ্চ আদালত হাইকোর্ট থেকে চার সপ্তাহের জামিন নিয়ে গত ১৮ জুলাই আদালতে হাজিরা দিলে তাদের জামিন না মঞ্জুর করে জেল হাজতে পাঠায়। সে হিসাবে আমার বাড়িতে পুরুষ শূন্য হয়ে যায়। গত ২৬ জুলাই বিকালে আদালত থেকে বাড়ি ফিরি দেখি কৈখালি বাজারে ইমান হোসেন আমাদের জায়গা দখল করে প্রাচীর নির্মাণ করছে। এঘটনা লাবসা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আব্দুল আলিমের কাছে অভিযোগ দিলে তিনি ইমান হোসেনকে বলে কাজ বন্ধ করে দেন। পুনরায় উক্ত কাজে আমিসহ আমার পুত্রের বউয়েরা তাদের নিষেধ করার ফলে ইমান হোসেন ও তার পুত্র নাঈম হোসেন গংয়েরা আমাদের ওপর হামলা চালিয়ে ধারালো অস্ত্র দিয়ে আমার মাথায় কোপ মারে। বউমাদের শ্লীলতাহানী করে। পরে স্থানীয়রা আমাকে সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালে ভর্তি করে। এ ঘটনায় ২৭ জুলাই আমার ভাই মোশাররফ হোসেন বাদী হয়ে সদর থানায় মামলা দায়ের করে। যার নং : ৬৩।
    তিনি ইমাম হোসেন ও নাঈম হোসেনকে দ্রæত গ্রেফতার ও স্বামী, পুত্রদের হত্যা মামলার দায় থেকে অব্যহতির ব্যবস্থা গ্রহণে পুলিশ সুপারসহ সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষে আশু হস্তক্ষেপ কামনা করেন।

    Leave a Reply